1. doorbin24bd@gmail.com : admin2020 :
  2. reduanulhoque11@gmail.com : Reduanul Hoque : Reduanul Hoque
July 19, 2024, 3:32 pm
সংবাদ শিরোনাম :
সামুদ্রিক সম্পদ আহরণে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর অস্ত্র জমা দিয়েছি কিন্তু ট্রেনিং জমা দিইনি : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী কোটা নিয়ে আনা লিভ টু আপিল দ্রুত শুনানির জন্য রোববার আবেদন করা হবে: এটর্নি জেনারেল মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে বিএনপি-জামায়াতের ইন্ধন রয়েছে:ওবায়দুল কাদের কোটার বিষয়ে আদালতকে পাশ কাটিয়ে কিছুই করবে না সরকার : আইনমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়নের আহ্বান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নই আমাদের লক্ষ্য : প্রধানমন্ত্রী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সৌ‌দি রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

বাড়ছে রক্তে শর্করার মাত্রা আমাদের করনীয় কি!

  • প্রকাশিত : সোমবার, আগস্ট ২৩, ২০২১
  • 386 বার পঠিত

মোঃ আনিসুর রহমানঃ ডায়াবেটিস আক্রান্তদের ডায়েট মেনে চলতে হবে। যখনতখন ভাত-রুটি খেলে চলবে না। এতে শরীরে এসে ভর করতে পারে হৃদরোগ, পায়ের সমস্যা, কিডনি সমস্যাসহ আরো অনকে রোগ।

জীবনকে সর্বাঙ্গসুন্দর করতে নিরোগ সুস্থ শরীর খুব প্রয়োজন। কিন্তু রক্তে শর্করার মাত্রা বেশি থাকলে স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনে আসে বাধা। তার উপর ডায়াবেটিস থাকলে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখাটা খুবই মুশকিল হয়ে পড়ে।

অনেক ডায়াবেটিস রোগীদের খাওয়াদাওয়ার পরে, বিশেষ করে ভাত-রুটি খাওয়ার পর, রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যায়। চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায় একে বলে ‘আফটার মিল হাইপারগ্লাইসেমিয়া’। এক্ষেত্রে খাওয়াদাওয়ার বিষয়ে কয়েকটি নিয়ম মেনে চলতে হবে। তাহলে এ সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে।

সকাল থেকে সারাদিন কী খাবার খাচ্ছেন সেটা খেয়াল রাখা জরুরি। যেমন মিষ্টি, পাউরুটি, আটার রুটি, ভাত এই জাতীয় খাবার খুব কম খেতে হবে। না হলে খাওয়াদাওয়ার পর রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যাবে। সকাল থেকে প্রতি বেলায় কী খাবার খাবেন তার একটি পরিকল্পনা করে নেবেন। তাহলে কখন কোন খাবার খাবেন, তা নির্ধারণ করতে সুবিধা হবে। মানে ডায়েটটা সঠিক ভাবে করতে সুবিধে হবে। এছাড়া যা খাচ্ছেন, সেগুলো ডায়াবেটিসের পক্ষে আদৌ উপকারি কি না, সেটাও ভেবে দেখার অবকাশ পাবেন।

একেবার নয়, বারে বারে খান

একবারে অনেকটা খাবার খাওয়ার প্রবণতা যদি আপনার মধ্যে থাকে, তাহলে আজই তা থেকে বিরত থাকার চেষ্টা করুন। অনেকটুকু একবারে না খেয়ে, অল্প অল্প করে খাবার খাওয়ার অভ্যাস করুন। কারণ গবেষণা বলছে দিনে তিন বেলা ভারী খাবার খাওয়ার চেয়ে যদি বারে বারে অল্প করে খাবার খাওয়া যায়, তা হলে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে।

কম গ্লাইসেমিক ইনডেক্সযুক্ত খাবার খাবেন

ডায়াবেটিস থাকলে কম গ্লাইসেমিক ইনডেক্সযুক্ত খাবার খাওয়া দরকার। তাই খাবার আগে দেখে নিন কোন ধরনের খাবারে জিআই বা গ্লাইসেমিক ইনডেক্সের পরিমাণ ৫৫ শতাংশের কম। এটি রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণ খেয়াল করুন

কার্বোহাইড্রেট বেশি মাত্রায় খাওয়া ডায়াবেটিসের রোগীদের একেবারেই উচিত নয়। মানে ভাত-রুটি। তাই যখন খাচ্ছেন তা ‘লো-কার্ব’ বা স্বাস্থ্যকর কার্বোহাইড্রেট খাবার চেষ্টা করুন। এছাড়া প্রতিদিন কতখানি কার্বোহাইড্রেট খাচ্ছেন, সেই বিষয়েও একটু সতর্ক থাকার চেষ্টা করতে হবে। অতিরিক্ত প্রসেস করা কার্বোহাইড্রেট কখনই খাবেন না।

সংবাদটি শেয়ার করুন :
এ জাতীয় আরও খবর

পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বু বৃহ শুক্র
 
১০১১
১৩১৫১৬১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭৩০৩১  
© All rights reserved © 2024 doorbin24.Com
Theme Customized By Shakil IT Park